ভারতবধের লক্ষ্যে টসে জিতে ফিল্ডিয়ে বাংলাদেশ

EkattorPost Desk

ক্রীড়া ডেস্ক

২ নভেম্বর ২০২২, ০৬:০৭ পিএম


ভারতবধের লক্ষ্যে টসে জিতে ফিল্ডিয়ে বাংলাদেশ

ছবিঃ সংগৃহীত

একাত্তর পোস্ট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সেমির রেসে টিকে থাকার লড়াইয়ে অ্যাডিলেড ওভালে আজ টসে জিতে ভারতকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে বাংলাদেশ। বৃষ্টির শঙ্কা কাটিয়ে মাঠে গড়িয়েছে টস। যেখানে গুরুত্বপূর্ণ টস ভাগ্যে জিতে ভারতকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে সাকিব আল-হাসানের দল।

বাংলাদেশ দলে এসেছে এক পরিবর্তন। সৌম্য সরকারের জায়গায় একাদশে সুযোগ পেয়েছেন শরিফুল ইসলাম।

তিন ম্যাচে দুই জয়, বাকি থাকা দুই ম্যাচের একটিতে জিতলেই হবে না। অস্ট্রেলিয়ায় চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনালে খেলতে হলে দুই ম্যাচই জিততে হবে বাংলাদেশকে। রান রেটে অনেক পিছিয়ে থাকায় পথটা কঠিন সাকিব আল হাসানের দলের জন্য। একইভাবে বাকি দুই প্রতিপক্ষ ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে জেতার পথটাও বেশ কাটা বেছানো।

এর আগে টি২০ বিশ্বকাপে সবশেষ ২০১৬ সালে মুখোমুখি হয়েছিল দু’দল। যেখানে বেঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে ভারতকে প্রায় হারিয়েই দিয়েছিল বাংলাদেশ। তবে শেষ পর্যন্ত ভাগ্য সহায় হয়নি। ১ রানে নাটকীয়ভাবে হেরে যায় বাংলাদেশ। তবে আজও সেই হারের ক্ষত পুড়াই বাংলাদেশের ক্রিকেট-প্রেমীদের। সেই ক্ষতে প্রলেপ দেওয়ার ম্যাচ আজ। তবে সেক্ষেত্রে অ্যাডিলেড ওভালে সাকিব আল-হাসানের দলের লিখতে হবে মহাকাব্য।

অ্যাডিলেড ওভালে নতুন করে মহাকাব্য লিখতে হবে না বাংলাদেশকে। এর আগেও এই মাঠে সুখ স্মৃতি রয়েছে বাংলাদেশের। এই মাঠেই ২০১৫ সালে ইংল্যান্ডকে বিদায় করে রূপকথার গল্প লিখেছিল টাইগাররা। এবারও টাইগারদের হাতছানি দিয়ে ডাকছে আরেকটি রূপকথা। যেখানে ভারতকে হারাতে পারলে সেমির পথ অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে বাংলাদেশের সামনে।

অন্যদিকে ভারতও চাইবে জয় তুলে সেমির পথে পা বাড়াতে। সবশেষ ম্যাচে সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে হেরে যাওয়ায় সেমিতে ওঠা কিছুটা কঠিন হয়েছে তাদেরও। ফলে জয় ভিন্ন অন্য কিছু ভাবছে না রোহিত শর্মার দল। শক্তিমত্তায়ও বাংলাদেশের থেকে ডের এগিয়ে ভারত। তবে বাংলাদেশকে সাহস যোগায় সাম্প্রতিক সময়ে ভারতের বিপক্ষে ক্রিকেটারদের আগ্রাসী মনোভাব। প্রতিপক্ষ হিসেবে ভারতকে পেলেই কেমন জানি শারীরই ভাষা পরিবর্তন হয়ে যায় বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের। শেষ পর্যন্ত লড়ে যায়। উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে মাঠ থেকে গ্যালারি হয়ে মাঠের বাইরেও।

বাংলাদেশ একাদশঃ নাজমুল হোসেন শান্ত, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নুরুল হাসান সোহান, ইয়াসির আলী রাব্বি, আফিফ হোসেন, তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, শরিফুল ইসলাম।  

ভারত একাদশঃ রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), লোকেশ রাহুল, বিরাট কোহলি, সূর্যকুমার যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া, অ্যাক্সার প্যাটেল, দিনেশ কার্তিক, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, মোহাম্মদ শামি, ভুবনেশ্বর কুমার, অর্শ্বদিপ সিং।

Link copied